1. dailygonochetona@gmail.com : admi2017 :
  2. aminooranzan@gmail.com : Amin Anzan : Amin Anzan
  3. aminooranzan24@gmail.com : Amin Anzan : Amin Anzan
  4. chanmiahsw@gmail.com : chan miah : chan miah
  5. sbnews74@gmail.com : sajahan biswas : sajahan biswas
রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০১:৪৩ অপরাহ্ন

শিবালয়ে রাস্তা নির্মাণে ধীরগতি জনদুর্ভোগ চরমে

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১, ১১.৪৪ পিএম
  • ৫১০ বার পঠিত

 

শাহজাহান বিশ্বাস, মানিকগঞ্জ। ২৪ জুন ২০২১

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বোয়ালী ডাক্তারখানা হতে কৃষ্ণপুর, জমদুয়ারা ও কলাবাগান এলাকায় যাতায়াতের রাস্তাটি নতুন করে কার্পেটিংয়ের জন্য নির্মাণ কাজ চলছে ধীরগতিতে। ফলে এ রাস্তা দিয়ে মানুষের যাতায়াতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। রাস্তাটির মাঝে খুড়ে মাটি ফেলে রাখায় মানুষের চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সড়কের মাঝে গভীর গর্ত করায়  চলতি বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টি হলেই পানি জমে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। ফলে অর্ধ কিলোমিটার রাস্তায় রিক্সা-ভ্যান চলাচলতো দুরের কথা পায়ে হাটাও কষ্টকর হয়ে পড়েছে। সড়ক নির্মাণ বা মেরামত কাজের প্রজ্ঞাপনে সড়কের এক অংশ খোলা রেখে কাজ করার কথা থাকলেও তা করা হচ্ছে না। ফলে মানুষের চলাচলের বেশী অসুবিধা হচ্ছে। এতে এসব এলাকার মানুষের মাঝে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে।

জানা গেছে, মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার তেওতা ইউনিয়নের প্রায় অর্ধ কোটি টাকা ব্যায়ে ৫শ’ মিটার সড়ক নির্মাণ কাজে ধীরগতির অভিযোগ উঠেছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। এতে রাস্তাটি  বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে। ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।  দীর্ঘদিন ধরে এ রাস্তাটির বেহাল অবস্থা। এ রাস্তা দিয়ে চলাচলে মানুষকে ভোগান্তিতে পড়ত হয়েছে। এ রাস্তাটি নতুন করে নির্মাণের দাবী ছিল অনেক আগে থেকেই। এ নিয়ে এলাকাবাসী স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ইউপি চেয়ারম্যানের শরানাপন্ন হয়েছেন অনেকবার। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর শিবালয় এলজিইডি কর্র্তৃক রাস্তাটির নতুন করে কার্পেটিংয়ের কাজ শুরু হয়েছে। ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক সংলগ্ন বোয়ালী ডাক্তারখানা হতে কৃষ্ণপুর পর্যন্ত ১ দশমিক ৫কিলোমিটার কার্পেটিংয়ের জন্য ৪৫ লাখ ৯৭হাজার ৭শ’ ৩৭ টাকা ব্যায়ে রাস্তাটির নির্মণ কাজ চলছে। নির্মাণ কাজের দরপত্র পান জাহিদ এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। দরপত্র শেষে গত ১৩ এপ্রিল ২০২১ তারিখ ওয়ার্ক- ওয়ার্ডার দেওয়া হয়েছে ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে। শুরু থেকেই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কচ্ছপ গতিতে রাস্তাটির নিমাণ কাজ শুরু করেন। ফলে জনবহুল এ রাস্তাটি দিয়ে মানুষের যাতায়াতে ভীষন অসুবিধা হচ্ছে। এবার বর্ষার আগে কাজ শেষ করতে পারবে কি না তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করছেন স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে জানান, শিবালয় উপজেলার অক্সফোড একাডেমী হয়ে কৃষ্ণপুর, জমদুয়ারা, রাধাকান্তপুর ও টুবাখালী হয়ে ৮কিলোমিটার রাস্তা কলাবাগান  সড়কের সাথে সংযুক্ত হয়েছে। এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে থাকে। রাস্তার মাঝে মাঝে বড় বড় খানা-খন্দে ভরপুর ছিল। তেওতা ইউনিয়ন পরিষদ এবং স্থানীয় মানুষের প্রচেষ্টায় গত বছর এ রাস্তার কিছু অংশ ইটের সলিং করা হয়। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর বেহাল রাস্তাটির কিছু অংশ কার্পেটিং এর দরপত্র হলেও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের গাফলতিতে রাস্তা নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হচ্ছে না। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান  ইট উঠিয়ে রাস্তার মাঝে গর্ত করায় বৃষ্টি হলে পানি জমে থাকে ওই গর্তে। এতে সম্পূর্ণরূপে মানুষের চলাচলে অনুপযোগী হয়ে পড়ে। মানুষের চলাচলের জায়গা না রেখে রাস্তার মাঝে মাটি ফেলে রাখা হয়েছে। এতে সাধারণ মানুষের ভোগান্তির যেন শেষ নেই। দ্রুত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটিকে কাজ শেষ করার দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাস্তাটি নির্মাণ কাজের জন্য ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান রাস্তায় ইটের নীচে থাকা মাটি তুলে নেওয়ায় রাস্তাটি খালে পরিণত হয়েছে। যে কারণে বৃষ্টির পানি জমে থাকে রাস্তার মাঝে। কাজ চলছে ধীর গতিতে। এতে এলাকার মানুষকে সীমাহিন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

কথা হয় কৃষ্ণপুর গ্রামের সাধন হলদারের সাথে তিনি জানান, রাস্তাটি খুড়ে রাখাতে পানি জমে থাকায় মানুষের  চলাচল করা কষ্টকর হয়ে পড়ছে। দীর্ঘ সময় পার হলেও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান রাস্তাটি নির্মাণ কাজ শেষ করতে পারেনি। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের গাফলতির কারণে দেরি হচ্ছে। দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এ এলাকার মানুষকে। এ ভোগান্তি কবে শেষ হবে বলতে পারছিনা।

কৃষ্ণপুর  গ্রামের ডি,এম নাছিম উদ্দিন বলেন, এ রাস্তাটি অনেক জনগুরুত্বপূর্ণ। এ রাস্তার পাশে অক্সফোর্ড একাডেমি নামের স্বনামধন্য একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এছাড়া জমদুয়ারা বাজার এবং প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাতায়াতের রাস্তা এটি। এছাড়া আরিচা ঘাট তথা শিবালয়ের সাথে তেওতা ইউনিয়নবাসীর স্থায়ী যোগাযোগের একমাত্র রাস্তা হচ্ছে এটি। কারণ যমুনা নদীর পার দিয়ে যে রাস্তাটি আছে সেটি হচ্ছে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ এটি যে কোন সময় নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে। বোয়ালী ডাক্তারখানা থেকে জমদিয়ারা এ রাস্তা   দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে থাকে। বিধায় রাস্তাটি আরো চওড়া ও উচু করা দরকার ছিল। কারণ স্বাভাবিক বর্ষার পানিতেই রাস্তাটি ডুবে যায়। বিগত দিনে দেখা গেছে, বর্ষার শুরুতেই রাস্তাটি হাটু পানিতে তলিয়ে যায়। ফলে কর্তৃপক্ষ বাধ্য হয়ে স্কুল ছুটি ঘোষনা করতেন। এ পরিস্থিতিতে রাস্তাটি আরো উচু করা দরকার ছিল বলে তিনি মনে করেন।

তেওতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দূল কাদের বলেন, আমাদের ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে বোয়ালী ডাক্তার খানা থেকে কলাবাগান পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার রাস্তাটির নির্মাণ কাজের জন্য একাধিকবার উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার অফিসে প্রস্তাবোনা পাঠানো হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে এবার অর্ধ কিলোমিটার কার্পেটিংয়ের জন্য দরপত্র আহবান করে উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার বিভাগ। কাজ শুরু হয়েছে তবে ধীরগাতিতে। জনবহুল এ রাস্তাটির নির্মাণ কাজ দ্রুতগতিতে শেষ করার জন্য ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

শিবালয় থানা ইঞ্জিনিয়ার কাজী ফাহাদ কুদ্দুস বলেন, সাধারণত রাস্তার উপর নির্ভর করে কাজ করা হয়ে থাকে। নতুন রাস্তা নির্মাণের সময় পাশ দিয়ে যদি বাইপাস রাস্তা থাকে তাহলে রাস্তা বন্ধ করে কাজ করা যাবে। কিন্তু বাইপাস রাস্তা না থাকলে রাস্তার এক পাশ দিয়ে কাজ চলবে অপর পাশ দিয়ে লোকজন যাতায়াত করবে। মানুষের চলাচল বন্ধ করে দিয়ে কাজ করার কোন বিধান নেই। জমদুয়ারার এ  রাস্তাটি ইটের ছলিং ছিল। আর  যে বালু মাটি ছিল তার টেম্পার না থাকায় রাস্তা খুড়ে পুরাতন বালু মাটি তুলে ফেলে দিয়ে নতুন করে বালু মাটি দেওয়া হচ্ছে। ঠিকাদারকে  দ্রুত কাজটি শেষ করার জন্য বলা হয়েছে।

এব্যাপারে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জাহিদএন্টারপ্রাইজের মালিক মো. জাহিদ হোসেন বলেন, আমরা ইস্টেমেট অনুযায়ী কাজ করছি এবং নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই কাজ শেষ করব।  বৃষ্টির জন্য কাজে একটু সমস্যা হয়েছে। হাফ কিলোমিটার এ রাস্তাটিতে ১০ ইঞ্চি উচু করে নতুন বালু ফেলা হচ্ছে। খোওয়া পড়বে ১২ ইঞ্চি এবং কার্পেটিং হবে ১ ইঞ্চি। খুব দ্রুতই কাজটি শেষ করা হবে বলে তিনি জানান।

শাহজাহান বিশ্বাস/গণ

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazargonoche21

© All rights reserved  2020 Gonochetona.com